শক্তি পরীক্ষায় সফল উদ্ধব

uddhav-thackeray-govt-wins-floor-test.png

মহাঅঙ্কের সমাধানে সফল আগাড়ি জোট। শক্তিপরীক্ষায় ১৬৯ বিধায়কের সমর্থন নিয়ে মহারাষ্ট্র বিধানসভায় নিজেদের খাতা খুলল  শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোট। 

বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছিলেন উদ্ধব ঠাকরে। এনসিপি নেতা দিলীপ ওয়ালসে পাটিল প্রোটেম স্পিকার পদে নিযুক্ত হয়েছেন। তার আগে প্রোটেম স্পিকারের পদ থেকে কেন কোলাম্বকারকে সরানো হল তা নিয়ে সোচ্চার বিজেপি। রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে প্রতিবাদ জানানো হবে বলে জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের বিজেপি নেতৃত্ব। আজ অবশ্য ওয়ালসের নেতৃত্বেই বিধানসভার বিশেষ অধিবেশনে শক্তি পরীক্ষার মুখোমুখি হন মারাঠাভূমের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। আগামী ৩রা ডিসেম্বরের মধ্যে আগাড়ি জোটকে বিধানসভায় শক্তি পরীক্ষা দিতে হবে বলে জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল কোশিয়ারি। কিন্তু, তার আগেই সফলভাবে অগ্নি পরীক্ষা দিল ঠাকরে সরকার। মন্ত্রীত্বের বিস্তার এখনও সম্পূর্ণ হয়নি। শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও জোটের তিন দল থেকে দু'জন করে মন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন। সূত্রের খবর, আগামী কয়েক দিনেই ঠাকরে মন্ত্রিসভার বিস্তার হবে। তার আগেই পোক্ত সরকার তুলে ধরতেই এই পদক্ষেপ জানিয়েছেন আগাড়ি জোটের নেতারা।

আস্থা ভোটের শুরু থেকেই হই-হট্টগোল শুরু করে বিজেপি। তাদের দাবি, প্রথামাফিক শুরু হয়েনি অধিবেশন । এই নিয়ে প্রোটেম স্পিকারের কাছে অভিযোগ করেন দেবেন্দ্র ফড়ননবীশ। প্রোটেম স্পিকার দিলীপ ওয়ালসে বলেন, 'রাজ্যপালের নির্দেশে এই অধিবেশন চলছে।' এরপরই সভা ছেড়ে বেরিয়া যান বিজেপি বিধায়করা।

 রবিবার মহারাষ্ট্রের স্পিকার নির্বাচন। তারপরই বিরোধী দলনেতার নাম ঘোষণা হবে। উপ-মুখ্যমন্ত্রীর নাম এখনও চূড়ান্ত করতে পারেনি এনসিপি। 

Sat 30 Nov 2019 16:53 IST | ওয়েব ডেস্ক