লঙ্কাগড়ের লঙ্কাকান্ড

|ধা রা বা হি ক|►

 

ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল বাংলার নাড়াজোল রাজবংশ। সেই রাজবাড়ির রাজবাড়ির পরিখায় তরবারি হাতে পাহাড়া দিতেন স্বয়ং দেবী জয়দুর্গা। জনশ্রুতি  তাঁর অসির জ্যোতিতে অত্যাচারি ইংরেজরা চোখ ঢাকত। বর্গীরাও এই জনপদের ধারেকাছে ঘেঁষতে পারতো না। সেই দেবী জয়দুর্গার অন্তর্ধান রহস্য নিয়ে এই ধারাবাহিক...

 

বসন্ত আসে যায়

ভালবাসার মানুষগুলো হয়ত এইরকমই হয়! হাজার জনের ভিড়েও, তবু চেনা শরীর টাকে ঈশ্বর যেন কোন এক আলাদা সুতোয় নির্দিষ্ট করে বেঁধে দেয়।

►কবিতা

সেটিং মিটিং সেরে হাসে মিটিমিটি— / কুমিরের তুতোভাই, ক্যামেলিয়ন গিরগিটি

একটি তুলসি গাছের কাহিনি

‘সুল ফুকিয়েও’ নান্দনিক পরশপাথরে পূ্র্ণ তাঁর কানন

সহিষ্ণুতার ভাষা

উনিশশো বাহান্নতে ঢাকা শহরে যে-আন্দোলনের জন্ম সে আন্দোলন যে পরবর্তী দিনে ‘একটি ভাষা’ বা একটি নির্দিষ্ট ভাষিক গোষ্ঠীর নয়, হয়ে উঠেছে নিখিল বিশ্বের প্রতিটি ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ভাষিকগোষ্ঠীসহ মাঝারি এবং বৃহৎ সব ভাষিক গোষ্ঠীর নিজ নিজ মাতৃভাষার অগ্রগতির আন্দোলনের একটা প্রতীকী দিন।

লঙ্কাগড়ের লঙ্কাকান্ড

প্রায় সাড়ে ছশো বছরের পুরনো বাংলার নাড়াজোল রাজবংশ সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছিল ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে।বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসু সেই বাড়ির অন্দরমহলে বসে বিপ্লবের পরিকল্পনা করতেন। নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসু আজাদ হিন্দ ফৌজের দায়িত্ব নিয়ে বিদেশে পাড়ি দেবার আগে এই রাজবাড়ির মাঠেই বক্তৃতা দিয়েছিলেন।এই রাজবাড়ির পরিখায় তরবারি হাতে পাহাড়া দিতেন স্বয়ং দেবী জয়দুর্গা।তাঁর অসির জ্যোতিতে অত্যাচারি ইংরেজরা চোখ ঢাকত। বর্গীরা নাড়াজোল জনপদের ধারেকাছে ঘেঁষতে পারতো না।

►কবিতাগুচ্ছ

আধুনিক ভারতীয় কবিতার অন্যতম সেরা কবি, নীলমণি ফুকনের  বিস্ময়কর অনুভূতি প্রায় সাত দশক জুড়ে প্রাণিত করছে আমাদের। তাঁর কবিতাযাপনের অভিজ্ঞতার সঙ্গে এই সময়ের অ-অসমিয়া, বিশেষ করে বাঙালি পাঠকের সংযোগ কতটা আর কীভাবে ছড়িয়ে আছে তা? এরকম প্রশ্ন তুলেই শুরু হল নীলমণির কবিতার ধারাবাহিক অনুবাদ। 

►ধারাবাহিক: বোবাযুদ্ধ ♦শেষ পর্ব♦

জীবন মোটেও ঈশপের গপ্পো নয়। একা ক্ষয়ধরা ব্যবস্থার বিরুদ্ধে একটি মানুষ সর্বাত্মক জিতে যাবে তা হয় না। তবে তীব্র ইচ্ছাশক্তি দিয়ে সে অনুকুল প্রত্যুত্তর খুঁজে নিতে পারে।

খেলাঘর

সন্ধ্যায় করিডরের দরজা ঠেলে মাধুরী এ বাড়িতে পা রাখলেই শ্রেষ্ঠার ঠোঁটের  কোনে মিষ্টি হাসি ঝিলিক দেয়। কথা না বলেও, চোখের ভাষায় ধরা পড়ে ওর উচ্ছ্বাস।

►কবিতা

এমন বৃক্ষ বিরল হলেও / একটি-দুটির দেখা মেলে শতাব্দীতে।