ডিমের পাতুরি

egg-paturi.jpg (

চেনা ডিম একটু অন্যভাবে, রাঁধলে তার একঘেয়েমি দূর হয়। ডিম শুনলেই চেনাপরিচিত পোচ, ওমলেট বা কারি বা ঝোল মনে হতে পারে কিন্তু এখন ডিমকে কন্টিনেন্টাল পদেও বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ডিমের প্রতি খাদ্যরসিকদের দুর্বলতা চিরকালীন।
 
ডিম একটি পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার। বাঙালি বাড়ির রান্নাঘরে ডিম নিত্যনৈমিত্তিক। তা সে ব্রেকফাস্ট হোক বা খুদের টিফিনে বানিয়ে দেওয়া! ডিমের প্রতি আস্থা রাখতে হয় কমবেশি সব বাড়িতেই। এমনিতে কম দাম আর সেই সঙ্গে পুষ্টি, দুইয়ে মিলে ডিমের আদর সব হেঁশেলেই তুঙ্গে। 

উপকরণ: সিদ্ধ ডিম ৪টে, ২ চামচ জিরে গুড়ো, চামচ গরম মশলার গুঁড়ো, ২ চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো, ময়দা ৫০ গ্রাম, আধা কাপ পেঁয়াজ কুঁচি, ধনেপাতা ২ আঁটি, ২ চামচ কাঁচা লঙ্কা বাটা,আধা কাপ পোস্ত বাটা, ১ কাপ নারকেল কোরানো, রসুন ৪ কোয়া,সামান্য চিনি, পরিমাণ মতো সরষের তেল, স্বাদ মতো নুন, আগুনে সেঁকে রাখা কলা পাতা।

পদ্ধতি: সাদা আর কালো সরষে, নারকেল কোরা, রসুন, পোস্ত, কাঁচালঙ্কা ঠান্ডা জলে মিশিয়ে ২০-২৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। ২০-২৫ মিনিট পরে সব কিছু একসঙ্গে মিহি করে বেটে মসৃণ মিশ্রণ তৈরি করতে হবে।  সেদ্ধ ডিম সুতো দিয়ে মাঝ বরাবর  সমানভাবে কেটে নিয়ে ময়দা জলে গুলে ব্যাটার বানিয়ে নিয়ে প্রতিটা ডিমের টুকরো তাতে ডুবিয়ে হালকা তেলে ভেজে নিতে হবে। আর একটা পাত্রে তেল গরম হলে প্রথমে পেঁয়াজ ভেজে নিতে হবে, তারপর হলুদ,  নুন-চিনি আর সর্ষে-পোস্ত-নারকেলের মিশ্রণ ঢেলে ১০ মিনিট কষিয়ে নেওয়া  এ বার এই মশলার মধ্যে ভাজা ডিম দিয়ে হালকা ভাবে নেড়ে নিতে হবে।  মিনিট দুয়েক পর ওপরে ধনেপাতা আর কয়েক ফোঁটা সর্ষের তেল ছড়িয়ে কলা পাতার মধ্যে মশলা মাখানো সেদ্ধ ডিম মুড়ে সুতো অথবা টুথপিক দিয়ে আটকে নিন। এর পর একটা প্যানে তেল গরম করে মুড়ে রাখা কলা পাতা গুলো দিয়ে ঢেকে দিন। পাতার দুই দিক লাল হয়ে পুড়ে এলে নামিয়ে নিন। এ বার গরম গরম পরিবেশন করুন জিভে জল আনা ডিমের পাতুরি।

Thu 19 Aug 2021 15:43 IST | আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক