বাদাবনের ছবি প্রতিযোগিতায় সেরা বাংলাদেশি আলোকচিত্রীর ছবি

Bangladeshi-photographer-is-the-winner-Mangrove-Photography-Awards-2021

বাংলাদেশে সুন্দরবনের এক মৌয়াল কীভাবে বিশাল মৌমাছির ঝাঁককে তাড়িয়ে মৌচাক থেকে মধু সংগ্রহ করছেন সেই ছবিটিই এ বছরের প্রতিযোগিতায় সর্বসেরা নির্বাচিত হয়েছে । ছবিটি তুলেছেন বাংলাদেশের ফটোগ্রাফার মুশফিকুর রহমান। 

এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল ম্যানগ্রোভ অ্যাকশন প্রজেক্ট নামে একটি সংস্থা, যাদের মূল লক্ষ্য বিশ্বের বাদাবনগুলোর সংরক্ষণ। এটি ছিল সংস্থার সপ্তম বছরের প্রতিযোগিতা। এ বছর ৬৫টি দেশের ১,৩০০ ছবির মধ্যে মুশফিকুর রহমানের ছবি নাম - অ্যা ব্রেভ লাইভলিহুড- দুঃসাহসিক এক জীবিকা, সর্বসেরা ছবির স্বীকৃতি পেয়েছে । জঙ্গলের জীবন, উপকূলের মানুষ এবং বাদাবনের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ককে ছবির মধ্যে দিয়ে তুলে ধরাই এি প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্য। পাশাপাশি এটাও দেখানো যে জলের নিচে এবং জলের ওপরে যে অসাধারণ প্রাণবৈচিত্র্য আছে তা কতটা ভঙ্গুর।

বাদাবন জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব ঠেকানোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাজনের এক একর রেইনফরেস্ট বা চিরহরিৎ বনভূমি যতটা কার্বন ডাই-অক্সাইড শুষে নিতে সক্ষম, ঠিক একই পরিমাণ কার্বন ডাই-অক্সাইড শোষণের ক্ষমতা আছে এক একর (৪০০০ বর্গ মিটার) ম্যানগ্রোভ অরণ্যের। এছাড়াও ম্যানগ্রোভ অরণ্য প্রবল ঝড়ঝঞ্ঝা থেকে উপকূলের ভাঙন রোধেও কাজ করে। 

Mangroves-&-Landscape-1_0.png

'ফটোগ্রাফির মধ্যে দিয়ে বাদাবনের প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ এবং পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার্থে মানগ্রোভ অরন্য রক্ষার জন্য  মানুষকে সচেতন করা এখন খুবই জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে । পৃথিবীতে আদিতে যে পরিমাণ ম্যানগ্রোভ বা বাদাবনের আচ্ছাদন ছিল, এখন তার অর্ধেকেরও কম টিকে আছে, এই বলছেন প্রতিযোগিতার বিচারক রবার্ট আরউইন।এবারের প্রতিযোগিতায় ছয়টি ভিন্ন ক্যাটেগরি হয়েছিল। এসব ক্যাটেগরিতে বিজয়ী কিছু ছবি এবং আলোকচিত্রীর দেয়া তাঁর ছবি সম্পর্কে কিছু বিবরণ।

ম্যানগ্রোভ এবং মানুষ ক্যাটেগরিতে বিজয়ী: ম্যানগ্রোভ প্রোপাগেটারস (বাদাবনের জন্মদাতা) ছবি তুলেছেন ফিলিপিন্সের মার্ক কেভিন বাদায়স। ফিলিপিন্সের বাদাবনে লাগানো চারাগাছের সামনে সূর্যাস্তের আলোয় দাঁড়ানো দুটি শিশু।ফিলিপিন্সের উপকূল এলাকায় সূর্য অস্ত যাচ্ছে। সমুদ্র সৈকত পরিষ্কার করে স্থানীয় এলাকার মানুষ সেখানে বাদাবনকে পুর্নজীবন দেবার জন্য আবার চারাগাছ লাগিয়েছে। ম্যানগ্রোভ এবং মানুষ ক্যাটেগরিতে দ্বিতীয় স্থান: আল রিম দ্বীপে কায়াক নৌকাবাইচ। ছবি তুলেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের হুরিয়া আল মুফলাহি । তিনি জানিয়েছেন, কায়াক নৌকা বাইচ করতে গিয়ে ম্যানগ্রোভের সৌন্দর্য দেখে দারুণ মুগ্ধ হই। ঠিক করি বাদাবনের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া আশ্চর্য শান্ত নীল নদীর সৌন্দর্য ভিন্ন আঙ্গিক থেকে তুলে ধরব ড্রোন ক্যামেরা দিয়ে।

ম্যানগ্রোভ এবং মানুষ ক্যাটেগরিতে উচ্চ প্রশংসিত ছবি: ওয়ার্ক ইন প্রোগ্রেস (কাজ চলছে) এই শিরোনামে, ছবি তুলেছেন ভারতের অভিজিৎ চক্রবর্তী ।ভারতে বাঁধ নির্মাণ প্রকল্পে নিযুক্ত একদল নারী শ্রমিক একজন আরেকজনের হাতে কাজের জোগাড় তুলে দিচ্ছেন ।ম্যানগ্রোভ এবং ল্যান্ডস্কেপ ক্যাটেগরিতে প্রথম বিজয়ী: শরতের গাছ, ছবি তুলেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের জোহাইব আঞ্জুম ।সংযুক্ত আরব আমিরাতে উপকূল বরাবর বিস্তৃত বেশিরভাগ ম্যানগ্রোভ অরণ্য রয়েছে আবুধাবিতে। এই বনাঞ্চল শহরের 'সবুজ ফুসফুস'।

ম্যানগ্রোভ এবং ল্যান্ডস্কেপ ক্যাটেগরিতে দ্বিতীয় স্থান: ম্যানগ্রোভস অ্যাট ডন (বাদাবনে ভোর) ছবি তুলেছেন আমেরিকার মেলডি রবাটর্স
ফ্লোরিডায় ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চলের জলের গাছের উপর দিয়ে উড়ে যাওয়া একটি পাখি ।

ম্যানগ্রোভ এবং ল্যান্ডস্কেপ ক্যাটেগরিতে উচ্চ প্রশংসিত ছবি: শাইনিং স্টারস অ্যাবাভ ম্যানগ্রোভ ট্রি (ম্যানগ্রোভে গাছের মাথায় তারকাখচিত আকাশ) ছবি তুলেছেন মালয়েশিয়ার ইউসুফ বিন মালদি। মালয়েশিয়ার পুলাউ মাওয়ার-এ মার্সিং সমুদ্রসৈকতে যে ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল আছে সেখানে গাছের মাথায় ছায়াপথ। একমাত্র ভাটার সময় পায়ে হেঁটে ওই এলাকায় যাওয়া সম্ভব।

ম্যানগ্রোভ এবং ওয়াইল্ডলাইফ ক্যাটেগরিতে বিজয়ী: অ্যাডাপটেশন অফ বেঙ্গল টাইগার (বাঘের মর্জি) ছবি তুলেছেন ভারতের অরিজিৎ দাস। চার দিন ধরে পালিয়ে বেড়ানো বাঘটার পিছু পিছু  ছুটেছি অবশেষ বাঘটা যখন একটা খাদ লাফ দিয়ে পার হচ্ছিল সেই মুহূর্তে লেন্সবন্দি। 

ম্যানগ্রোভ এবং ওয়াইল্ডলাইফ ক্যাটেগরিতে দ্বিতীয় স্থান: ডান্সিং মাডস্কিপার (কাদা মাছের নাচ) ছবি তুলেছেন তাইওয়ানের লিও লিউ। মাডস্কিপার উভচর মাছ। তারা বাস করে কাদাজলে এবং মালয়েশিয়ায় বাদাবনের জীববৈচিত্র্যের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

ম্যানগ্রোভ এবং আন্ডারওয়াটার ক্যাটেগরিতে বিজয়ী: শেল্টার (আশ্রয়) ছবি তুলেছেন বাহামার শেন গ্রস।
বাহামায় ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চলে গাছের শিকড়বাকড়ের পাশ কাটিয়ে সাঁতরে বেড়াচ্ছে একটি সবুজ কচ্ছপ। সামুদ্রিক কচ্ছপটি ম্যানগ্রোভ অরণ্যে আশ্রয় নিয়েছে। সবুজ কচ্ছপ জন্ম নেয় সমুদ্র সৈকতে, তারা বড় হয় সাগরে, তাদের খাদ্য সামুদ্রিক ঘাস এবং বাদাবনের ঘন অরণ্যে বা প্রবালের খাঁড়ির ভেতর তারা নিরাপদ আশ্রয়ে লুকিয়ে থাকে। এই প্রজাতির কচ্ছপকে রক্ষা করতে হলে ম্যানগ্রোভের প্রাণবৈচিত্র্য সংরক্ষণ জরুরি।

ম্যানগ্রোভ এবং আন্ডারওয়াটার ক্যাটেগরিতে দ্বিতীয় স্থান: অ্যা রেয়ার অ্যান্ড অকেশনাল এনকাউন্টার (বিরল এক সংঘাত) ছবি তুলেছেন নেদারল্যান্ডসের অ্যান্টিল্সের লোরেঞ্জো মিট্টিগা।ফ্রগফিশের জীবন সাধারণত সারগাসাম সামুদ্রিক শেওলার সাথে সম্পৃক্ত। আটলান্টিক মহাসাগরে এই সামুদ্রিক শেওলার ওপর দিয়ে ফ্রগফিশ ভেসে বেড়ায়, তারা হাজার হাজার মাইল পথ পাড়ি দেয় এই শেওলায় ভর করে।

ম্যানগ্রোভ এবং আন্ডারওয়াটার ক্যাটেগরিতে উচ্চ প্রশংসিত ছবি: আপসাইড ডাউন জেলিফিশ ইন দ্য ম্যানগ্রোভ (ম্যানগ্রোভে উল্টো মুখ জেলিফিশ) ছবি তুলেছেন নেদারল্যান্ডসের অ্যান্টিলেসর লোরেঞ্জো মিট্টিগা
নেদারল্যান্ডসের অ্যান্টিল্সে ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চলে গাছের শিকড়ের পাশে একটি উল্টো মুখ জেলিফিশ।
ম্যানগ্রোভ এবং ঝুঁকি ক্যাটেগরিতে বিজয়ী ছবি: গারবেজ অন ম্যানগ্রোভ (বাদাবনে জঞ্জাল) ছবি তুলেছেন ফিলিপিন্সের মার্ক কেভিন বাদায়সফিলিপিন্সের ম্যানগ্রোভ অরণ্যে গাছের ডালে প্লাস্টিক বর্জ্য । পৃথিবীর এই অঞ্চলে প্লাস্টিক বর্জ্য একটা বিরাট সমস্যা। এই প্লাস্টিক বর্জ্যের দাপটে বনাঞ্চলের নাভিশ্বাস উঠছে।

Mangroves-&-Landscape_2.png

ম্যানগ্রোভ এবং ঝুঁকি ক্যাটেগরিতে দ্বিতীয় স্থান: ব্রোকেন ম্যানগ্রোভ (বিধ্বস্ত ম্যানগ্রোভ) ছবি তুলেছেন ইন্দোনেশিয়ার ধানি দারমানসিয়া সারাগিইন্দোনেশিয়ার স্থানীয় মানুষের কাটা ম্যানগ্রোভের একটি গাছের পাশে দাঁড়ানো এক ব্যক্তি। স্থানীয় মানুষ নৌকা ও ঘরবাড়ি বানাতে এবং জ্বালানির জন্য ম্যানগ্রোভের গাছপালা কেটে নিয়ে যায়। গত তিন দশকে ইন্দোনেশিয়ার ৪০% বাদাবন ধ্বংস হয়ে গেছে।

ম্যানগ্রোভ এবং ঝুঁকি ক্যাটেগরিতে উচ্চ প্রশংসিত ছবি: দ্য রিফ্লেকটেড থ্রেট (ঝুঁকির প্রতিচ্ছবি) ছবি তুলেছেন ব্রাজিলের মার্সেলো কস্টা সোয়ারেস। ব্রাজিলে সবে চারা লাগানো এক বাদাবন এলাকায় জমে থাকা জলের মধ্যে একটি বহুতল ভবনের প্রতিফলিত ছবি । ব্রাজিলে শহর এলাকায় সবচেয়ে বড় যে ম্যানগ্রোভ অরণ্য তৈরি করা হচ্ছে তার জন্য সবচেয়ে বড় ঝুঁকির ছবি প্রতিফলিত হয়েছে সবে চারা লাগানো জমিতে জমে থাকা জলের মধ্যে। পরিবেশগত কারণে সংরক্ষিত এই এলাকায় বহুতল বাড়ি তৈরির বড় ধরনের ঝুঁকি তৈরি করছে।

ম্যানগ্রোভ এবং তারুণ্য ক্যাটেগরিতে বিজয়ী ছবি: কোস্টাল ফ্যানটম (উপকূলের ভূত) ছবি তুলেছেন আমেরিকার কালেব হুভার । ডাহুক ধরনের একটি পাখি আমেরিকার একটি ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চলের ছায়ায় আশ্রয় নিয়েছে। বিরল প্রজাতির এই পাখিটি এই এলাকায় দেখা গেল ছয় বছরেরও বেশি সময় পর। তবে এই পাখিটি অবশ্যই ফ্লোরিডার উপকূলে ম্যানগ্রোভ অরণ্যের এই অংশকে নিরিবিলি এবং নিরাপদ মনে করেছে।

Fri 1 Oct 2021 12:45 IST | আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক