ফুটবলের রাজপুত্র প্রয়াত। শোকস্তব্ধ বিশ্ব...

/world-and-fans-mourns-as-diego-maradona-dies-at-60

বাড়িতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৬০ বছর বয়সে চিরঘুমের দেশে চললেন ফুটবলের রাজপুত্র।  দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা। বেশ কয়েক দিন ধরেই শারিরীক ও মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন তিনি।  কিংবদন্তী ফুটবলারের  প্রয়াণে শোকাহত বিশ্ববাসী। 


মারাদোনার জন্ম ১৯৬০ সালের ৩০ অক্টোবর। আট ভাইবোনের মধ্যে পঞ্চম। শৈশব থেকেই তাঁর পায়ে চুম্বকের মতো সেঁটে থাকত ফুটবল। মাত্র দশ বছর বয়সেই ঠাঁই হয় আর্জেন্টিনাস জুনিয়র্স ক্লাবে। ১৯৭৬। ১৬ বছর বয়সি ঝাঁকড়া চুলের যুবক খেলল প্রিমিয়র ডিভিশন। চোখ ধাঁধানো গোল সুযোগ করে দিল পরের বছর জাতীয় দলে সর্বনিষ্ঠ খেলোয়ার হিসেবে মাঠে নামার। এরপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয় নি। মাঠে শুরু ফুটবলের বরপুত্র রাজপুত্রের ম্যাজিক।  ১৯৭৯ আর্জেন্টিনা জিতল যুব বিশ্বকাপ। বিশ্ব ফুটবল এই প্রথম চিনল যুবরাজকে। ১৯৮২ সালে আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপ খেলার প্রথম অভিজ্ঞতাটা সুখকর ছিল না। লালকার্ড দেখতে হয় ব্রাজিলের সঙ্গে খেলায়। বার্সা হয়ে এরপর তিনি নাম লেখাবেন নাপোলির খাতায়। নাপোলিকে ব্যক্তিগত দক্ষতায় ইওরোপ সেরার শিরোপা এনে দিলেন মারাদোনা। ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ মারাদোনার জীবনে সোনায় মোড়া বছর। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে করা গোল নিয়ে যখন গোটা বিশ্ব জুড়‌ে বিতর্ক, মারাদোনা এক কথায় বললেন, হ্যান্ড অফ গড। সেই ম্যাচেই ছয় ফুটবলারকে কাটিয়ে করা তার গোল মারাদোনা ভক্তরা কখনও ভুলবে না। সে বছর সোনার বুট পান মারাদোনা। 
মারাদোনা তো শুধু একজন বিশ্ববন্দিত ফুটবলার নন, তিনি এক উদ্দাম জীবন। যার বাঁকে বাঁকে বিতর্ক, তাকে টপকে কেবল ফুটবলেই যাপন। পেয়েছেন আবিশ্ব ফুটবলার ও ফুটবল প্রেমীদের অকৃত্রিম ভালোবাসা। 

তাঁর মূত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরে উঠছে শোকবার্তায়। মারাদোনার মৃত্যুশোকে লিখলেন কিংবদন্তী ফুটবলার  পেলে, 'মর্মান্তিক খবর। দারুণ এক বন্ধুকে আজ হারালাম আমি। বিশ্ব হারাল এক কিংবদন্তীকে। আরও অনেক কিছুই বলার রয়েছে, তবে এখনকার মতো শুধু বলতে চাই, ঈশ্বর ওর পরিবারকে শক্তি দিক। একদিন আকাশেও ফুটবল খেলব আমরা।' 

'আমার হিরো আর নেই...তোমার জন্যই আমি ফুটবল দেখা শুরু করেছিলাম।' মারাদোনার সঙ্গে ছবি শেয়ার করে টুইট পোস্টে শোকপ্রকাশ বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের।
লিওনেল মেসি লিখেছেন, 'দিয়েগো তো চিরন্তন। আমি ওঁর সঙ্গে কাটানো সুন্দর সময়গুলি মনের মণিকোঠায় রেখে দিয়েছি। আমি তাঁর পরিবার ও বন্ধুদের সমবেদনা জানাই।'

পর্তুগালের ফুটবল তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর ট্যুইট- আজ আমি একজন বন্ধুকে বিদায় জানাচ্ছি, আর বিশ্ব এক চিরন্তন প্রতিভাকে। সর্বকালের অন্যতম সেরা। অতুলনীয় জাদুগর। খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলেন তিনি। কিন্তু রেখে গিয়েছেন এক সীমাহীন উত্তরাধিকার এবং এমন এক শূন্যতা যা কখনও পূর্ণ হওয়ার নয়। তাঁর আত্মার শান্তিকামনা করছি। চিরস্মরনীয় হয়ে থাকবেন।
কিংবদন্তী ফুটবলারের প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

Thu 26 Nov 2020 11:41 IST | ওয়েব ডেস্ক