মুখের হাঁ এ জগৎখ্যাত সামান্থা

Meet-the-woman-whose-record-breaking-mouth-gape

যুক্তরাষ্ট্রের কানেটিকাট অঙ্গরাজ্যের বাসিন্দা সামান্থা রামসডেলের পরিচিতি বিশ্বের সবচেয়ে বড় মুখের হাঁ-এর অধিকারীনি হওয়ার জন্য। সিএনএন সংবাদ সংস্থার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বে যত নারী রয়েছে তার মধ্যে সামান্থার ঠোঁটের চারপাশ সবচেয়ে বড়। শুনতে অবাক করার মতো হলেও ব্যাপারটা সত্যি। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছেন তিনি এবং পেয়েছেন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতিও।

ছোটবেলা থেকেই সামান্থা রামসডেলের মুখ অন্যদের থেকে তুলনামূলক বড়। তার হাসির ছবি দেখলেই তা স্পষ্ট বোঝা যায়। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখের হাঁ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।বড় মুখের কারণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ভীষণ জনপ্রিয় এই নারী। মানুষজন অবাক হয়ে তার মুখের দিকে তাকিয়ে থাকেন। সামান্থার ভিডিওগুলোও অসংখ্য মানুষ দেখেন। ভিউয়ার দেখলেই তা আন্দাজ পাওয়া যায়।

সিএনএন জানিয়েছে, ভিডিওর মাধ্যমেই বড় মুখের রেকর্ড গড়ার বিষয়টি প্রথম সামান্থার মাথায় আসে। পরে গিনেস কর্তৃপক্ষের কাছে তিনি স্বীকৃতির জন্য আবেদন করেন।গিনিস কর্তৃপক্ষ ঘটনাটি যাচাই করে। সামান্থার মুখের মাপ আড়াই ইঞ্চি (৬ দশমিক ৫৬ সেন্টিমিটার) এবং আড়াআড়িভাবে মাপা হলে তা আরও বেড়ে চার ইঞ্চি বা ১০ সেন্টিমিটারের বেশি হয়। এরপরই সামান্থার হাতে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি হিসেবে সনদ তুলে দেয় তারা।স্বীকৃতি পেয়ে সামান্থা রামসডেলে বলেন, মড় মুখের কারণে এতটা জনপ্রিয় হবো যে তা কখনো ভাবিনি।

Tue 3 Aug 2021 17:03 IST | আরম্ভ ওয়েব ডেস্ক